Windows-11 কি নাটক নাকি চাহিদা ? / Windows-11 Is Drama or Demand?

 

Windows-11 নিশ্চয় গত কয়েকদিন ধরে নিউজ ফিডে ঘুরা অন্যতম হট টপিক ? জি হ্যাঁ সম্প্রতি মাইক্রোসফট ঘোষণা দিয়েছে তারা বাজারে নতুন একটি অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে আসতে চলেছে যার নাম Windows-11 । মজার বিষয় হলো এই মাইক্রোসফট যখন Windows-10 বাজারে ছাড়ে তখন ঘোষণা  দিয়েছিলো তারা উইন্ডোজ সিরিজের আর কোন ভার্সন বাজারে নিয়ে আসবেনা তবে এর নতুন নতুন আপডেট প্রকাশ করবে। কিন্তু বর্তমান বাজারে গ্রাহকের চাহিদা এবং বাজারে প্রতিযোগিতা টিকিয়ে রাখতে তাদের কথা থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়েছে। সত্যি বলতে কোন মানুষই  সর্বশেষ কথা টি পছন্দ করেনা। তাই মানুষের চাহিদাকে মূল্যায়ন করার পাশাপাশি ব্যাবসায়িক স্বার্থকতা এখানে রয়েছে। এই Windows-11 এর সবচেয়ে আকর্ষনীয় যেটা আমার কাছে মনে হয়েছে তা হলো এতে এন্ড্রোয়েডের এপস গুলো নাকি নরমালি চলবে। তবে যতক্ষন পর্যন্ত এটি গ্রাহক পর্যায়ে না আসছে ততক্ষণ পর্যন্ত কোন কিছু নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা। কারন এর আগেও অনেক টেক জায়েন্ট আমাদের গাজর দেখিয়ে শেষে মুলা ধরিয়েছে হতাশ করে। তবে একেবারেই যে আমি আশাবাদি নই তা কিন্তু না। যাইহোক চলুন দেখে আসি এই Windows-11 তে কি কি নতুন সুবিধা যুক্ত হচ্ছে। 

Windows-11 তে অনেক নতুন ফিচারের দেখা মিলবে। যেমন, সহজেই বাহ্যিক মনিটরের সঙ্গে সংযুক্ত একটি কম্পিউটারকে পৃথক করে নিয়ে নিরব কোনো কক্ষে কথা বলার ব্যবস্থা করা যাবে। পরে আবার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা যাবে।

মাইক্রোসফট জানিয়েছে, সরাসরি টিমস চ্যাট সফটওয়্যারকে অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হবে। এ ব্যাপারটিও মাইক্রোসফটের বাজার প্রতিদ্বন্দ্বী স্ল্যাক টেকনোলজিস ইনকর্পোরেটেডের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। ইউরোপে মাইক্রোসফটের বিরুদ্ধে অ্যান্টিট্রাস্ট অভিযোগ এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

গেইমারদের জন্যও নতুন ফিচার থাকছে Windows-11-তে। অপারেটিং সিস্টেমটিতে এক্সবক্স অ্যাপ এবং আরও উন্নত গেইমিং কর্মক্ষমতা পাবেন ব্যবহারকারীরা। উন্নত এইচ ডি আর ব্যাবহার হবে এতে। 

বর্তমানে বিশ্বে উইন্ডোজ ব্যবহারকারী রয়েছেন একশ’ ৩০ কোটি। অ্যাপল ডিভাইস ব্যবহারকারী সংখ্যা একশ’ ৬৫ কোটি। তবে, ব্যবহারকারীর দিক থেকে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে গুগল। তাদের মোট অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী সংখ্যা এখন তিনশ’ কোটির ঘরে।

কনটেন্ট নির্মাতা ও স্থানীয় সংবাদ প্রতিষ্ঠানকে সরাসরি অর্থ দেওয়ার সুবিধা নিয়ে আসবে বলেও জানিয়েছে মাইক্রোসফট। সরাসরি উইন্ডোজ ১১-তে মিলবে ফিচারটি।

মাইক্রোসফট সম্প্রতি নিজেদের স্টোরের মাধ্যমে বিক্রি হওয়া গেইমের কমিশন কমিয়ে ১২ শতাংশ করেছে। সাধারণ অ্যাপের বেলায় বর্তমানে ১৫ শতাংশ করে কমিশন রাখে প্রতিষ্ঠানটি।

 

ও হ্যাঁ, বলে রাখছি এইবারের Windows-11 অনেক টা Windows-8 এর মত উইন্ডোজ বাটোন নিয়ে কিছুটা টানা হ্যাচরা করছে। এতে প্রাথমিক ভাবে নতুন ইউজারদের ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হলেও হতে পারে। সেই সাথে উইন্ডোজ বাটন সহ সকল টাস্ক মেনু গুলো সেন্ট্রালাইজড ভাবে টাস্ক বারে থাকবে। ইউজার চাইলে অবশ্য তা নিজের মত করে পরিবর্তন করে নিতে পারবে। 

মোটামোটি Windows-11 এর সব ফিচার অক্ষত রেখেই কিছুটা ভিন্ন Features যুক্ত করেই এই বছর শেষে আসতে চলেছে নাটোকীয় Windows-11 ।

...............এখন অপেক্ষা কতটা গর্জে আর কতটা বর্ষায়…………… 

 

কপি রাইটঃ এস. এম. রাজিব আহম্মেদ

ইন্সট্রাকটর, কম্পিউটার টেকনোলজি 

ড্যাফোডিল পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট

 

 

Comments

Sign in to comment