শিক্ষকতা কোন পেশা নয়, সৃষ্টিকর্তার দেয়া মহান দায়িত্ব/ Teaching is not a profession, it is a great responsibility given by the Creator

ToC:\Users\Ashis\Desktop\aaa.jpgday’s l

Eআমি আছি, আমি থাকবো, তোমাদের মাঝে .

শিক্ষকতা কোনও পেশা  নয় এটা  হচ্ছে সৃষ্টিকর্তার দেয়া মহান দায়িত্ব। 

The students of today are the leaders of tomorrow. this quote is the Foundation of my teaching philosophy. 

আমরা ছোটবেলায় অনেকেই  Aim in life লিখি আমরা ডাক্তার হব অথবা ইঞ্জিনিয়ার হব  কিন্তু আমরা বুঝতে পারিনা কিভাবে এটাতে সফল হবো।যার কারণে আমাদের অনেকের স্বপ্নই স্বপ্ন থেকে যায় 

 

আমরা আমাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারি না আমরা চলে যাই অন্য সেকশনে যেটা আমার হওয়ার কথা ছিল না।

 

আমি যখন ডিপ্লোমা তে পড়ি তখন আমার কাছে আমার এক শিক্ষক জানতে চেয়েছিল যে আমি কি হতে চাই তখন আমি  ইঞ্জিনিয়ারিং পরেও আমার মনের কথা বলতে পেরেছিলাম যে আমি শিক্ষক হতে চাই 

 

আমার স্বপ্ন পূরণ হলো আমি হতে পেরেছিএকজন শিক্ষক আমার মনে এলো একটা শান্তি.প্রথম প্রথম একটু বুঝতে সময় নিয়েছিল যে শিক্ষকতা কথাটা আসলেই কতটা মহান দায়িত্ব।  আমি সেটা বুঝতে পারেছি এবং কাজ করে যাচ্ছি সেই লক্ষ্যে।

 

একজন শিক্ষক হিসেবে আমি বলছি শিক্ষকই পারে একজন ছাত্র ছাত্রীকে সঠিক দিকনির্দেশনা দিতে। যে দিক নির্দেশনা ছাত্র ছাত্রীকে তার জীবনকে সুন্দর ভাবে অতিবাহিত করতে পারে। একজন অভিভাবক সম্পূর্ণ নির্ভরশীল থাকেন একজন শিক্ষকের উপর তেমনি একজন স্টুডেন্ট ও।

 

আমি  অনেকবার  অনেকজন অভিভাবকের মুখে শুনেছি যে ম্যাডাম আমার সন্তানকে আমি আপনার কাছে দিলাম আপনি ওকে আপনার মত করে শাসন করবেন খালি আমার সন্তান কে একটু ভালো শিক্ষা দিবেন  জেনো একটু ভালো করে পড়াশোনা করে. একজন অভিভাবক কতটা বিশ্বাস করলে এমন কথা বলতে পারে .এমন ভাবেই প্রতিটা বাবা-মা শিক্ষকের উপর নির্ভর করে।

 

আর অভিভাবকের এই নির্ভরশীলতার জন্য দায়িত্ব বেড়ে যায় শিক্ষকদের। অনেক শিক্ষকের এই দায়িত্ব বাড়ার সাথে সাথে একটা স্টুডেন্টের  জীবন  সচল থাকে।

 

আমি একটা গল্প  শেয়ার করব আমার একজন ছোট বোন  ওকে আমরা বাসায় শিখিয়েছি যেএটা হচ্ছে পলিথিন কিন্তু কোন এক শিক্ষক কোন এক সময় তার বইয়ে লেখা ছিল কলিথিন শিক্ষক ভুলবশত সেদিন উচ্চারণটা করে ফেলেছিল কলিথিন। এখন আমার ছোট বোন সবসময় পলিথিনকে বলতো কলিথিন কারন তার শিক্ষক কলিথিন বলেছেন এজন্য সে ওটাকে কলিথিন বলবে। তাহলে একজন ছাত্র ছাত্রীর জীবনে শিক্ষকের প্রভাব কতটা আমরা সেটা বুঝতে পারি।

 

তাই আমি বলতে চাই একজন শিক্ষক পারে  ছাত্র-ছাত্রীর ভবিষ্যৎ দিকনির্দেশনা দিয়ে তার জীবন উজ্জ্বল করতে। প্রত্যেক শিক্ষকের দায়িত্ব প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীর ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করার লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া

   শিক্ষকতা সে তো আত্মশুদ্ধি ভালোবাসা, ভালোলাগার স্থান। tomorrow’s leaders

=====================

সোমা রানী দাস

বিভাগীয় প্রধান 

ডিপার্টমেন্ট অফ কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং 

ড্যাফোডিল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট।

 

Comments

Sign in to comment