KGR (Keyword Golden Ratio) কি? / what is KGR (Keyword Golden Ratio)

 

এসইও নিয়ে ধারাবাহিক ব্লগ লেখার ক্ষেত্রে এবার বেছে নিয়েছে কিওয়ার্ড গোল্ডেন রেশিও। আসুন জেনে নেই KGR (Keyword Golden Ratio) কি? কিভাবে কেজিআর কিওয়ার্ড পাব? এর সুবিধা অসুবিধা এবং এসিওতে এর প্রয়োগ নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ ধারাবাহিক ব্লগ আর্টিকেল। এর আগে আমার লেখা ব্লগ গুলি যারা পড়েননি তাদের কে অনুরোধ করব কেজি আর বোঝার আগে ওই ব্লকগুলি একটু দেখার জন্য। কিওয়ার্ড নিয়ে আমি লিখেছিলাম, Keyword Research এ কীওয়ার্ড এর ধরন  ( Types of keywords in Keyword Research ), যেখানে কিওয়ার্ড কি এবং রিসার্চ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে যার কিছু অংশ এখানে তুলে ধরা হলো-Keyword কি? Keyword Research এ কী ওয়ার্ড এর ধরন কি কি ? বোঝর আগে কীওয়ার্ড কি? জেনেনেই একটি কীওয়ার্ড বা একটি ফোকাস কীওয়ার্ড হলো, এটি এমন একটি Word যা Website এর Page or Post এ থাকা সামগ্রীর বর্ণনা দেয় বা সেরা পোস্ট করে। এটি Search ওয়ার্ড যা কোন নির্দিষ্ট পৃষ্ঠার বা পেজ কে Rank করতে ব্যবহৃত হয়। সুতরাং যখন গুগল বা অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনগুলিতে সেই কীওয়ার্ড বা বাক্যাংশ Search করে, তখন ঐ ওয়েবসাইটটিতে সেই পৃষ্ঠাটি খুঁজে পাওয়া এবং পেজটিকে সার্চ ইঞ্জিন পেজে শো করা। যে ওয়ার্ড বা বাক্যাংশ ব্যবহার করে কাজটি করা হয় তাকে আমরা Keyword বলে থাকি। Keyword Research: এক কথায় বলতে গেলে Search Engine এ কোন Word টি বেশি ব্যবাহার করা হচ্ছে, সেই Word টি খুজে বের করাই হোল Keyword Research।

 অডিট নিয়ে দেখেছিলাম-ওয়েবসাইটের জন্য এসইও অডিট চেকলিস্ট তৈরি করুন (SEO Audit Checklist Make for Website), যেখানে দেখেছিলাম-Search Engine Optimization (SEO) এর জন্য অডিট বা ওয়েবসাইটের অডিট  (Website Audit) যে কোন ওয়েবসাইটের জন্য অতন্ত জরুরী একটি বিষয়, যা ওয়েবসাইটকে  অধিক বিশ্বাসযোগ্যতা সরবরাহ করে এবং সার্চ ইঞ্জিনের কাছে অধিক আস্থা অর্জন করে যা যে কোন ওয়েবসাইটকে রেঙ্ক পেতে সহায়তা করে।তাই  যেকোনো ওয়েবসাইট কে গুগোলের নাম্বার অন পেজ এ নিয়ে আসতে অনেক গুলো SEO টেকনিক এর মধ্যে এসইও অডিট চেকলিস্ট (SEO Audit)  ক্রিয়েট করা অন্যতম একটি টেকনিক। SEO নিয়ে  ধারাবাহিক ব্লগের জন্য  “ ওয়েবসাইটের জন্য এসইও অডিট চেকলিস্ট তৈরি করুন (SEO Audit Checklist Make for Website) “ ।

 

 এছাড়া লিখেছিলাম - ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে গুগল এ নাম্বার ওয়ান হওয়ার উপায় (The way to become number one in Google through the website), ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে গুগল এ নাম্বার ওয়ান  হওয়ার উপায়  (The way to become number one in Google through the website) গুলুর মধ্যে ওয়েবসাইট এর ওনপেজ-অফপেজ এর কাজ, ওয়েবসাইট এর টেকনিকাল পার্ট এর কাজ করা অতন্ত জরুরী । তাই  যেকোনো ওয়েবসাইট কে গুগোলের নাম্বার অন পেজ এ নিয়ে আসতে অনেক গুলো SEO টেকনিক এপ্লাই করার প্রয়োজন হয়।

 

 আসুন এবার জেনে নেই কিভাবে  KGR কিওয়ার্ড বের করা যায়? 

 

KGR (Keyword Golden Ratio) কি?

গোল্ডেন রেশিও এমন এক ধরনের রেশিও, যা কোনো কিওয়ার্ডের রেশিও নির্ণয় করে খুব দ্রুত এবং সহজে সার্চ ইঞ্জিন এ রেঙ্ক পাওয়া সম্ভব। গোল্ডেন রেশিও সেই ধরনের একটি রেশিও যেখানে একটি কিওয়ার্ড এর অল ইন টাইটেল এবং সার্চ ভলিউম দিয়ে রেশিও বের করা হয়। বর্তমানে অনেক এসইও স্পেশালিস্ট ডিজিটাল মার্কেট রিসার্চ বিভিন্নভাবে করে থাকে এবং বিভিন্ন ফ্রী টুলস এর মাধ্যমে এই কী-ওয়ার্ড রিসার্চ করা যায়। কেজি আর বের করার জন্য  KGR ফর্মুলা ব্যবহার করা হয়ে থাকে। প্রশ্ন হচ্ছে কেজি আর ফর্মূলা কি?

কেজি আর গোল্ডেন রেশিও মেথড এ যে কেউ যেকোন কিওয়ার্ড নিয়ে খুব সহজেই শুধুমাত্র নিজের  সাইটের On Page এসইও করলেই গুগলের প্রথম Page আসতে পারবে। তাই এই মেথড কোন কিওয়ার্ড কে খুব দ্রুত রেঙ্ক পেতে সাহায্য করে থাকে তাই এটি খুবই জনপ্রিয় একটি এসইও টেকনিক। আর এই ফর্মুলাটা আবিষ্কারক হচ্ছে Niche Site Project এর CEO Doug Cunnington | keyword Golden Ratio বা KGR এই পদ্ধতি বের হওয়ার পর ব্যাপকভাবে প্রত্যেকটি মহলে তিনি সমাদৃত হন এবং সবাই প্রশংসা করেন এবং বড় মানের ব্লগার এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার এই পদ্ধতির সাথে একমত পোষণ করেন |  এই পদ্ধতিটি কাজে লাগিয়ে  খুব সহজেই গুগোল এর প্রথম পজিশনে অরগানিক ট্রাফিক ওয়েবসাইটের জন্য আনা যায়।

 

 

KGR কিওয়ার্ড চেনার উপায় :

ফর্মুলাটা নিয়ে অনেক কিছুই বলা হলো কিন্তু কিভাবে এই ফর্মুলার মাধ্যমে  কি ওয়ার্ড খুঁজে বের করবেন সে বিষয়টা নিয়ে এখন আলোচনা করব । KGR পদ্ধতিতে যদি কোন কিওয়ার্ড খুঁজে পেতে হয় তাহলে অবশ্যই লো সার্চ ভলিউম যুক্ত কিওয়ার্ড অথবা 5 থেকে 8 ওয়ার্ড যুক্ত Long Tail কীওয়ার্ড নিতে হবে । মাসিক সার্চ ভলিউম জানার জন্য আমি keyword surfer chrome extension টি ব্যবহার করি, অথবা Keywords Everywhere chrome extension  টি ব্যবহার করি।

এভাবে কোন কিওয়ার্ডের সার্চ ভলিউম জানতে পারবেন অর্থাৎ মাসিক কতগুলো সার্চ হয় আপনার একই কীওয়ার্ড টার উপর ।  গুগলের সার্চ বক্সে টাইপ করতে হবে – allintitle: “Your Keyword” লিখে সার্চ করবেন।

ধরে নিচ্ছি  কিওয়ার্ড টি হোল–” best intra workout supplement ”. এবার Google এর সার্চ বক্সে লিখতে হবে – allintitle: best intra workout supplement । এবার একটু লক্ষ করলে দেখা যাবে Google আপনাকে কত গুলো রেজাল্ট দেখাচ্ছে।

Keyword-allintitle

এখন দেখতে পারলেন গুগল আপনাকে এই কীওয়ার্ড টির জন্য Allintitle: যে ভ্যালুটা দেখাচ্ছে সেটা হচ্ছে Allintitle Value : (174 ) । (allintitle:”Your Keyword” লিখে যতগুলো সার্চ রেজাল্ট Google থেকে পেয়েছেন, সেটা)/আপনার কিওয়ার্ডের মাসিক সার্চ ভলিউম।

এবার দেখুন ভাগফলের রেজাল্ট যদি 0.25 এর নিচে চলে আসে, তাহলে আপনার কিওয়ার্ড টি KGR ফর্মুলা নিয়ম অনুসারে আপনি এই কীওয়ার্ড টি আপনার ওয়েবসাইট জন্য নিতে পারেন। যদি 1.00 এর বেশি হয় তবে সেই কিওয়ার্ড গুলি নিব না।

আমাদের কিওয়ার্ডের ( best intra workout supplement ) সার্চ ভলিউম ছিল 210 Monthly । আমরা Allintitle: পেলাম 174 । Allintitle: ভ্যালু কে সার্চ ভলিউম এর ভ্যালু দিয়ে ভাগ করলে যে রেজাল্টটা পাবেন সেটাই হচ্ছে আপনার KGR Value । ভাগফলের রেজাল্ট যদি 0.25 এর নিচে চলে আসে, আপনি এই কীওয়ার্ড আপনার নিস সাইটের জন্য বা অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট এর জন্য ব্যবহার করতে পারেন ।

আমি আপনার জন্য প্রফিটেবল লো কম্পিটিটিভ কিওয়ার্ড খুজে বের করব যেগুলো দিয়ে আপনি আমাজন সেল এবং ব্লগ সাইটের ট্রাফিক বৃদ্ধি করতে পারবেন ।

এভাবে গোল্ডেন রেশিও গুলি বের করে একটি এক্সেল শিট মেনটেন করে রাখা যেতে পারে। পরবর্তীতে ওই কীবোর্ডের উপরে ব্লগ  বা আর্টিকেল রাইট করে একটি পেজ কে গুগলের টপ রাংকিং এ খুব দ্রুত আনা সম্ভব। সাধারণত ব্লগ এবং আর্টিকেল এর ক্ষেত্রে গোল্ডেন রেশিও এটি খুব ভালো কাজ করে থাকে।

ধন্যবাদ সবাইকে। ভালো থাকুন

মুহাম্মাদ সহিদুল ইসলাম

ইনস্ট্রাক্টর(কম্পিউটার)

ড্যাফোডিল পলিটেকনিক ইন্সস্টিটিউট

 

 

Comments

Sign in to comment